রিয়াজ-নাসরিনের পর এবার কাঁদলেন জায়েদ খান

এফডিসিতে যেন কান্নার জোয়ার বইছে। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে বিভিন্ন ঘটনা প্রসঙ্গে আবেগপ্রবণ হয়ে একাধিক তারকাকে কান্না করতে দেখা গেছে। প্রথমে চিত্রনায়ক রিয়াজ কেঁদেছেন; সেই কান্না নিয়ে হয়েছে বিস্তর আলোচনা-সমালোচনা। এরপর কান্নার মিছিলে সামিল হন নায়িকা নাসরিন।

ধারাবাহিকতায় এবার কাঁদলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। আসন্ন নির্বাচনে তিনি লড়ছেন সাধারণ সম্পাদক পদে। রোববার (২৩ জানুয়ারি) বিকেলে মিশা-জায়েদ প্যানেল পরিচিতি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার এক পর্যায়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

কাঁদতে কাঁদতে জায়েদ বললেন, ‘আমি যে কত এতিম এখন, বোঝাতে পারব না। আমার মা মরার আগে বলে গেছেন, তোমার আর বিয়েশাদি লাগবে না, তুমি শিল্পী সমিতি নিয়েই থাকো।’

কান্না সামলে জায়েদ খান বলেন, ‘শিল্পী সমিতি এখন আমার ভালোবাসার জায়গা হয়ে গেছে। তাই এত শত্রু। যে শিল্পী সমিতিতে আমি এসে দেখেছি, নিজের টাকা দিয়ে চা খেতে হয়। সেখানে এখন দুইটা কফির মেশিন; মিশা-জায়েদ পরিষদের অবদান। তিনটা ফ্রিজ সমিতিতে, একুশটা লাইট জ্বলে। এসব আমরা করেছি। এত কাজ করে অনেকের চক্ষুশূল হয়ে গেছি।’

করোনার সময়ের কথা উল্লেখ করে জায়েদ বলেন, ‘এফডিসিতে ১১টা কুকুর আছে, না খেয়ে শুকিয়ে গেছে। সেই কুকুরগুলোকেও রান্না করে নিয়ে খাইয়েছি। আমি জীবনটা দিয়ে দিয়েছি এই শিল্পী সমিতির জন্য।’

গত দুই মেয়াদে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন জায়েদ খান। তার সঙ্গে সভাপতি ছিলেন মিশা সওদাগর। তারা যৌথভাবে এবারও প্যানেল গঠন করেছেন। অন্যদিকে তাদের প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকছে ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণ প্যানেল। আগামী ২৮ জানুয়ারি এফডিসিতে অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!