https://lifestylecampus24.com/

শিশুর চিকিৎসার জন্য অলিম্পিক পদক বিক্রি

সবে মাত্র কিছুদিন আগে শেষ হওয়া টোকিও অলিম্পিকে জ্যাভেলিন থ্রো’তে রৌপ্য পদক জিতেছিলেন পোল্যান্ডের জ্যাভেলিন থ্রোয়ার মারিয়া আন্দ্রেজিক। টোকিও থেকে নিজ দেশে ফিরে গিয়ে দারুণ এক মানবিক কাজে অংশ নিলেন তিনি। মাত্র ৮ মাস বয়সী এক এতিম শিশুর চিকিৎসার জন্য টোকিওতে পাওয়া নিজের রৌপ্য পদকটি বিক্রি করে দিলেন মারিয়া।

টোকিও অলিম্পিকে জ্যাভেলিন থ্রোয়ে রৌপ্য পদক জেতা পোলিশ অ্যাথলিট মারিয়া আন্দ্রেজিক নিলামে তুলে বিক্রি করলেন। সেখান থেকে পাওয়া অর্থ তিনি মিলোসজেক মালিসার নামক এতিম শিশুটির হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের কাজে ব্যায় করেন।

মারিয়া ২০১৬ রিও অলিম্পিকে মাত্র ২ সেন্টিমিটারের জন্য পদক জিততে পারেননি। ২০১৭ সালে কাঁধের চোটের জন্য খেলা থেকে দূরে সরে থাকতে হয় তাকে। ২০১৮ সালে বোন ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তারকা অ্যাথলিট। শেষমেশ সুস্থ হয়ে ট্র্যাকে ফেরেন মারিয়া এবং টোকিও অলিম্পিকে ৬৪.৬১ মিটার দূরত্বে জ্যাভেলিন ছুঁড়ে রূপার পদক গলায় ঝোলান।

মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করতে হয়েছে নিজেকে। তাই মারিয়া উপলব্ধি করেন সন্তান পোলের জীবনের মূল্য। তিনি স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টারে চিকিৎসারত শিশুটির পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। হৃদযন্ত্রের জটিল রোগে আক্রান্ত শিশুটির অস্ত্রোপচারের জন্য বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা প্রয়োজন। এই বিপুল পরিমাণ অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যেই তহবিল গড়েন মারিয়া।

ফেসবুকে নিজের অলিম্পিক পদক নিলামে তোলার কথা ঘোষণা দেন তিনি। পরে সোশ্যাল মিডিয়াতেই তিনি জানান যে, পোল্যান্ডের সুপার মার্কেট চেন জাবকা নিলাম থেকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার মার্কিন ডলারের বিনিময়ে কিনে নিয়েছে তার পদকটি। যদিও ঘটনা নতুন মোড় নেয় পরক্ষণেই। জাবকা মারিয়ার অলিম্পিক পদকটি তাকে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় এবং এই বিপুল পরিমাণ অর্থ অসুস্থ শিশুটির চিকিৎসার জন্য দান করার কথা জানিয়ে দেওয়া হয় তাদের তরফে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!