না ফেরার দেশে শেন ওয়ার্ন

রডনি মার্শের মৃত্যুর শোক এখনো কাটিয়ে ওঠেনি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট। এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়া জানতে পারল, আরেক কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নও চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
ধারণা করা হচ্ছে, হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন সর্বকালের সেরা এই ক্রিকেটার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫২ বছর।
আজ ওয়ার্নের ম্যানেজমেন্ট এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘শেনকে তার বাংলোয় অচেতন অবস্থায় পাওয়া গেছে। এরপর মেডিকেল দলের আপ্রাণ চেষ্টার পরেও তাকে আর ফেরানো যায়নি।’
সেখানে আরও যোগ করা হয়েছে, ‘তার পরিবার এই মুহূর্তে একা থাকতে চায়। এ বিষয়ে পরে আরও জানানো হবে।’
আজ বাংলাদেশ সময় ভোরে জানা গিয়েছিল, রডনি মার্শ আর নেই। সে খবর পাওয়ার ২৪ ঘণ্টাও পেরোয়নি এখনো। মার্শের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছিলেন ওয়ার্ন নিজেও। তার মধ্যেই এলো এই খবর।
১৫ বছরের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে স্পিন জাদুতে, ঝুলিতে পুরেছেন ৭০৮ টেস্ট উইকেট। টেস্ট ক্যারিয়ার শেষ করেছিলেন ইতিহাসের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের রেকর্ড নিয়ে। সেই রেকর্ড পরে হারিয়েছেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী মুত্তিয়া মুরালিধরনের কাছে। তবে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট ইতিহাসে এখনো তিনিই সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী।
১৯৯২ সালে সিডনিতে টেস্ট অভিষেক তার। এরপর দুই ফরম্যাটেই সেরা হয়ে উঠতে সময় নেননি ‘ওয়ার্নি’। অস্ট্রেলিয়ার ১৯৯৯ বিশ্বকাপের শিরোপাজয়ী দলের সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৩ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত পাঁচটি অ্যাশেজও জিতেছেন ওয়ার্ন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!