চুলের যত্নে দারুণ উপকারি আলুর রস

শীতের সময়ে আপনার ত্বকের মতোই রুক্ষতা ভর করবে চুলেও। সুন্দর চুলগুলো হঠাৎ অনেকটা মলিন হতে শুরু করবে। এসময় খুশকির প্রকোপ তো বাড়েই, সেইসঙ্গে চুল পড়া, চুলের আগা ফাটা, চুলে জট পড়ার সমস্যাও বেড়ে যায়। তাই চুল ভালো রাখতে নানা ধরনের প্রসাধনী ব্যবহার করেন অনেকে। তাতে সাময়িক মুক্তি মিললেও পরে নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য যেসব প্রসাধনী কিনে আনেন সেগুলো কেমিক্যালযুক্ত হওয়ার কারণে চুলের ক্ষতি হতে পারে। তাই চুল ভালো রাখার জন্য সেসব প্রসাধনীর বদলে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার ঘরে থাকা নানা উপাদানই কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে পারে।

চুলের যত্নে আপনাকে সাহায্য করতে পারে আলু। এটি নানাভাবে চুলের উপকার করবে। আলুতে আছে নানা ধরনের ভিটামিন ও মিনারেল। ফলে স্ক্যাল্প ভালো থাকে। চুলের নানা ধরনের সমস্যা দূর হয় দ্রুতই। তবে আলুর রস ব্যবহার করলেই হবে না, এটি ব্যবহারের সঠিক উপায়ও জানা থাকা চাই। চলুন জেনে নেওয়া যাক চুরের যত্নে আলুর রস ব্যবহারের উপায় ও উপকারিতা-

নতুন চুল গজায়

আপনার নতুন চুল গজানোর পরিমাণ বাড়লে চুলের ঘনত্বও বেড়ে যাবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করবে আলুর রস। সেজন্য প্রথমে এককাপ আলুর রস নিয়ে তাতে মেশাতে হবে একটি ডিমের কুসুম ও দুই চা চামচ মধু। এরপর সবগুলো উপাদান মিশিয়ে ভালো করে পেস্ট করে নিতে হবে। এবার সেই পেস্ট চুলে ও মাথার তালুতে ভালোভাবে মেখে অপেক্ষা করতে হবে মিনিট বিশেক। এরপর মাইল্ড কোনো শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নেবেন। সপ্তাহে একবার এটি ব্যবহার করতে পারেন। তাতে চুল ঘন হবে, সেইসঙ্গে থাকবে কোমল ও সুন্দর।

চুলের আগা ফাটা দূর করে

শীতের সময়ে ঠোঁট কিংবা পায়ের তালু ফাটার পাশাপাশি চুলের আগা ফাটার সমস্যাও দেখা দিতে পারে। অনেক সময় দূষণ, নানা ধরনের কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনীর ব্যবহারের কারণেও চুলের আগা ফাটতে পারে। তাই এসময় চুলের যত্নে আলুর রস ব্যবহার করুন। কারণ চুলের আগা ফাটার সমস্যা দূর করতে আলুর রস কার্যকরী। পরিমাণমতো আলুর রস নিয়ে তাতে সামান্য লেবুর রস, নারিকেলের দুধ ও মধু মিশিয়ে নিন ভালোভাবে। এরপর স্ক্যাল্পে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন আধাঘণ্টার মতো। এরপর চুলে শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে দুইবার এটি ব্যবহার করলেই চুলের আগা ফাটার সমস্যা দূর হবে দ্রুত। সেইসঙ্গে চুল হবে ঝলমলে।

চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে

শীতের সময় বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কমে যায়। এর প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বক ও চুলেও। সেইসঙ্গে স্ক্যাল্পও হয়ে ওঠে শুষ্ক। বেড়ে যায় খুশকির পরিমাণ। তাই চুল ভালো রাখতে স্ক্যাল্পের আর্দ্রতা ধরে রাখা জরুরি। সেজন্য কাজে লাগাতে পারেন আলুর রস। প্রথমে পরিমাণমতো আলুর রস বের করে নিন। এরপর তার সঙ্গে মেশান তিন চা চামচ অ্যালোভেরা জেল। ভালোভাবে মিশিয়ে নিন স্ক্যাল্পে লাগিয়ে নিন। এরপর অপেক্ষা করুন মিনিট বিশেক। এবার হালকা গরম পানিতে ধুয়ে নিন। এটি সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন। এতে স্ক্যাল্প আর্দ্র থাকবে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!