চা নাকি কফি ? শরীরের জন্য কোনটি ভালো ?

এক কাপ চা মানেই মনে প্রশান্তি। সকালে ঘুম থেকে উঠেই হোক বা বিকেলের আড্ডায়। কেবল আমরাই নই, বিশ্বের প্রায় সব দেশেই চা একটি খুবই পছন্দের পানীয়।

বর্তমানে চা এর স্থান কিছুটা দখল করে নিয়েছে কফি। এখানেই প্রশ্ন অনেকের- চা ও কফির মধ্যে পার্থক্য কী? কোনটি শরীরের জন্য বেশি ভালো?

চা ও কফি জাতীয় পানীয় প্রতিদিনের ডায়েটে যোগ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে ক্যাফেইন। এই উদ্দীপক আমাদের শরীরে অভূতপূর্ব এনার্জি দেয়।

বিবিসির মতে, এক কাপ কফিতে থাকে ৮০ থেকে ১১৫ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন। তবে বেশি পরিমাণ ক্যাফেইন থেকে হতে পারে নানা শারীরিক সমস্যাও। অন্যদিকে চা’তে ১০ থেকে ১৫ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন থাকে।

চা ও কফির মধ্যে সবচেয়ে বড় যে পার্থক্য দেখা যায় তা হলো, ঘুমের ওপর এই দুই পানীয়ের আলাদা প্রভাব। গবেষণায় দেখা গেছে, সমপরিমাণ চা ও কফি গ্রহণকারী ব্যক্তিদের মধ্যে দিনের বেলা এনার্জির পরিমাণ সমান হলেও রাতে নিদ্রাহীনতায় বেশি ভোগেন কফি পানকারী ব্যক্তিরা। গবেষকদের মতে, এর জন্য দায়ী কফিতে থাকা অত্যধিক পরিমাণ ক্যাফেইন।

প্রত্যেকদিন পরিমিত চা ও কফি দুটি পানীয় আমাদের শরীরে প্রবেশ করে সৃষ্টি করে এনার্জি। তবে গবেষণায় জানা গেছে, চা ও কফি একই পরিমাণ শক্তি প্রদান করলেও মস্তিষ্কের জন্য বেশি কার্যকর চা।

চা ও কফি দুটোই দাঁতের জন্য ক্ষতিকারক। তবে ডেন্টিস্টের মতে কফি পানে ক্ষতির পরিমাণ বেশি না হলেও ক্লোরেহেক্সাডাইন জাতীয় মাউথওয়াশ ব্যবহার করলে এই অল্প ক্ষতিই অনেক সময় গুরুতর আকার ধারণ করতে পারে। অপর দিকে চা দাঁতের এনামেলের ক্ষতি করে খুবই সামান্য। ফলে দাঁতে এর ক্ষতির ভয়ও কম।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!