জি-মেইল আসছে নতুন রূপে

জি-মেইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। তাই গুগলও তাদের এই প্ল্যাটফর্মকে ঢেলে সাজাচ্ছে ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা আরও ভালো করতে। গুগলের পক্ষ থেকে একটি অফিসিয়াল ঘোষণা দেওয়া হয়েছে এ ব্যাপারে। তারা বলছে, সবার প্রিয় ই-মেইল অ্যাপ্লিকেশন জিমেইল আসছে নতুন রূপে।

গুগল ওয়ার্কস্পেসের জন্য কিছু নতুন প্ল্যান নিয়ে আসছে এই সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট। যার ফলে জি-মেইলের আরও কাছাকাছি চলে আসবে গুগল চ্যাট, গুগল মিট এবং গুগল স্পেস। এবার থেকে জি-মেইল উইন্ডোতেই এই তিনটি সার্ভিস দেখতে পাবেন ব্যবহারকারীরা।

গুগলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, ২০২২ সালের দ্বিতীয় কোয়ার্টার থেকেই জি-মেইলের এই ইন্টিগ্রেটেড ভিউ দেখতে পাবেন। অর্থাৎ চলতি বছরের জুন মাস থেকেই জি-মেইল ব্যবহার করা যাবে এই নতুন ইন্টারফেসে।

গুগল ওয়ার্কস্পেসের এই ডেভেলপমেন্ট নিয়ে একটি ব্লগও প্রকাশ করে সার্চ ইঞ্জিন গুগল। সেখানে বলা হয়েছে, ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ব্যবহারকারীরা জি-মেইলের এই ইন্টিগ্রেটেড ভিউ পরীক্ষা করতে পারবেন।

এই নতুন লেআউটটিতে ইমেল, চ্যাট, স্পেস ও মিট এই চারটি বাটনে সুইচ করার অপশন দেওয়া হবে ব্যবহারকারীদের। এর আগে জি-মেইল, চ্যাট এবং মিট-এর সেই একত্রিত লেআউট আর থাকছে না।

জি-মেইল ব্যবহারকারীরা এবার থেকে একবারে চারটি বাটনের যে কোনো একটি একটু বড় আকারে দেখতে পারবেন। একই সঙ্গে আবার থাকবে নোটিফিকেশন বাবলের সাপোর্ট। যার মাধ্যমে অন্যান্য ট্যাব যেগুলো গুগল সাজেশন দিতে থাকে, সেগুলো সম্পর্কে আপ টু ডেটও থাকতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

জায়ান্টটির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, যারা জি-মেইলের নতুন লেআউট আপডেট করবেন, তারা ২ ফেব্রুয়ারি থেকেই ই-মেইলের এই একই লিস্ট এবং লেবেল অপশন চাক্ষুষ করতে পারবেন। তবে এখনই যারা করতে পারছেন না। তাদের জন্য সুযোগ থাকছে এপ্রিল পর্যন্ত। ২০২২ সালের দ্বিতীয় কোয়ার্টারে যতদিন না পর্যন্ত এই লুক রোলআউট করা হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত ইউজারদের নতুন লেআউট থেকে পুরাতন লেআউটে প্রত্যাবর্তনের সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে গুগল।

জি-মেইলের এই আসন্ন আপডেটটি ব্যবহার করতে পারবেন বিজনেস স্টার্টার, বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড, বিজনেস প্লাস, এন্টারপ্রাইজ এসেনশিয়ালস, এন্টারপ্রাইজ প্লাস, এডুকেশন ফান্ডামেন্টালস, এডুকেশন প্লাস, ফ্রন্টলাইন, ননপ্রফিট, জি স্যুট বেসিক ও বিজনেস কাস্টমার এবং গুগল ওয়ার্কস্পেস এসেনশিয়ালস-এর কাস্টমার যারা নন তারাও।

অবশ্য ওয়ার্কস্পেসের এই পরিবর্তনের ব্যাপারে ২০২১ সালেই ঘোষণা করেছিল গুগল। তার মধ্যে একটি ফিচার ছিল, একজন ইউজারের অন্যদের সঙ্গে ওয়ান অন ওয়ান কলিংয়ের সুবিধা, যার জন্য কোনো গুগল মিট লিঙ্কের দরকার পড়বেনা।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!